1. rezwan.sheikh@outlook.com : News Desk :
  2. admin@probashinewstv.com : Probashi News TV :
  3. kibtiahaque54@gmail.com : Reporter Kibtia :
  4. ovimani9649@gmail.com : Reporter Minhaz :
মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মীদের আবাসন ব্যবস্থা হুমকির মুখে।
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মীদের আবাসন ব্যবস্থা হুমকির মুখে।

সাংবাদিকঃ কিবতিয়া
  • আজ সোমবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২০

মালয়েশিয়ায় অ’ভিবাসী কর্মীদের আবাসন ব্যবস্থা হু’মকির মুখে। দেশটিতে বসবাসরত ৯০ শতাংশেরও বেশি অ’ভিবাসী শ্রমিকদের আবাসন ব্যবস্থা চরম সংকটে। এমনটি বলছে সে দেশের মানবাধিকার সংস্থা। চলমান করো’না মহা’মা’রি এই অবস্থা আরো ভ’য়াবহ হওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে চরম স্বাস্থ্যঝুঁকি। সংস্থা বলছে, মালয়েশিয়া ভুলে যায় দেশটির উন্নয়নে গু’রুত্বপূর্ণ অংশীদার বিদেশি কর্মীরা।

এই পরিস্থিতিতে মানবাধিকার সংস্থা (এনএসআই) এর পাশাপাশি গভীর উদ্বেগ ও ’হতাশা প্রকাশ করেছেন দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রী এম সারাভানানও। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা বারনামা জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে কুয়ালালামপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এম সারাভানান সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই উদ্বেগ প্রকাশ করেন। এসময় সিনিয়র মন্ত্রী দাতোক সেরী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুবও উপস্থিত ছিলেন।

দেশটির এনজিও ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা এনএসআই’র নির্বাহী পরিচালক এ্যাড্রিয়ান পেরেরা চরম উদ্বেগ ও ’হতাশা প্রকাশ করে সংবাদ মাধ্যম ফোকাস মালয়েশিয়াকে বলেন, মালয়েশিয়ানরা তাদের নিজেদের স্বার্থের কারণে ভুলে গেছে যে অ’ভিবাসী শ্রমিকরা এই দেশের জিডিপি বা অর্থনীতির গু’রুত্বপূর্ণ অবদান রাখা একটা অংশ।

দেশের অর্থনীতি, উন্নয়ন, সংস্কার ও সংস্কৃতি বিদেশিদের অবদান ভুলে গিয়ে আমর’া কেবল তাদেরকে অ’পরাধের সাথে তুলনা করি। পরিসংখ্যানে দেখা যাব’ে সবচেয়ে কম অ’পরাধ করে বিদেশিরা। দেশটির রাষ্ট্রীয় ব্যাংক নেগারা যদি অর্থনৈতিক উৎসের জরিপ করে তাহলে বিদেশিদের সংখ্যাটা অনেক বড় হবে এ্যাড্রিন পেরেরা আরো বলেন, অ’ভিবাসী শ্রমিক নিয়োগকারীরা শ্রমিকদের ন্যূনতম মানদ’ণ্ড মেনেও তাদের আবাসন ব্যবস্থা করে না।

ফলে তারা চরম অস্বাস্থ্যকর জনাকীর্ণ, নিরাপত্তাহীন, তীব্র গরমের মত পরিবেশে মানবেতর জীবনযাপন করে। মানবসম্পদ মন্ত্রী এম সারাভানান বলেন, দেশটিতে প্রায় ৯১.১% বা ১.৪ মিলিয়ন অ’ভিবাসী কর্মীদের আবাসন ব্যবস্থা ন্যূনতম স্ট্যান্ডার্ড বা মানদ’ণ্ড মানা হয়নি, যা খুবই উদ্বেগজনক। যা কি না ১৯৯০ সালের আবাসন আইন এর ৪৪৬ ধা’রার সুস্পষ্ট ল’ঙ্ঘন।

শ্রমিক নিয়োগদাতা আবাসন সরবরাহকারীদের অনুসন্ধানে গত ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত যে তথ্য পাওয়া গেছে তা হচ্ছে, দেশে মোট প্রায় ১.৬ মিলিয়ন অ’ভিবাসী কর্মীর মধ্যে মাত্র ৮.৮৯% শতাংশ আবাসন ব্যাব’স্থা সন্তোষজনক। আর বাকি ৯১.১% শতাংশ বা ১.৪ মিলিয়ন আবাসন ব্যবস্থা আইন ল’ঙ্ঘন করা হয়েছে জানান, মানবসম্পদ মন্ত্রী এম সারাভানান।

নিউজটি শেয়ার করুন...

এ জাতীয় আরো খবর...
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত প্রবাসীনিউজটিভি.কম
Develper By ProbashiNewsTV
error: চুরি করা নিষেধ । 😏